স্থানীয়

কুড়িপাইকায় মুক্তিযুদ্ধের আর্টিলারি শেল ধ্বংস

কুড়িপাইকা সীমান্ত

দক্ষিণ ইউনিয়নের কুড়িপাইকায় বাংলাদেশ/ভারত সীমান্ত এলাকা থেকে উদ্ধার হওয়া একটি অবিস্ফোরিত শক্তিশালী আর্টিলারি শেল ধ্বংস করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে কুমিল্লা ক্যান্টনমেন্টের একটি বোমা বিশেষজ্ঞ দল শেলটি বিস্ফোরণ ঘটিয়ে ধ্বংস করে।

এ সময় বোমা বিস্ফোরণের দৃশ্যটি দেখার জন্য এলাকায় হাজারো উৎসুক জনতা ভিড় জমায়।

বিজিবি সূত্রে জানা গেছে, গত ১০মার্চ কুড়িপাইকায় বাংলাদেশ/ভারত সীমান্তের ২০২২-৪/৫এস পিলার এলাকায় বাংলাদেশ অভ্যন্তরে পুকুর খনন করার সময় মাটি কাটার শ্রমিকরা আর্টিলারি শেলটি দেখতে পেয়ে জমির মালিক জসিম উদ্দিন জানায়।

পরে বিষয়টি জসিম উদ্দিন স্থানীয় বিজিবি ক্যাম্পের কমান্ডারকে জানালে ফকিরমুড়া সীমান্ত ফাঁড়ির ক্যাম্প কমান্ডার সানোয়ার আর্টিলারি শেলটি নিজেদের হেফাজতে নিয়ে নেয়।

বৃহস্পতিবার কুমিল্লা ক্যান্টনমেন্ট থেকে মেজর মিশকাত বেগমের নেতৃত্বে ১০ সদস্যের একটি দল আর্টিলারি শেলটি মাটিতে গর্ত খুঁড়ে ধ্বংস করে।

এ বিষয়ে বোমা বিস্ফোরক দলের প্রধান মেজর মিশকাত বেগম আখাউড়া.কম বলেন, ১৯৭১ সালে পাক বাহিনী শেলটি ফেলে যায়। এ ধরণের আর্টিলারি শেল আশপাশের দেড় থেকে দুই কিলোমিটার পর্যন্ত ক্ষতি সাধন করার ক্ষমতা রাখে।

এসব বোমা পাওয়া গেলে মানুষের নাগালের বাইরে রেখে দ্রুত স্থানীয় প্রশাসনকে খবর দেওয়ার জন্য পরামর্শ দেন মেজর মিশকাত বেগম।

Leave a Comment