বিবিধ

আরাফাত রহমান কোকো

আরাফাত রহমান কোকোর জীবন বৃত্তান্ত

কেকো-1

আরাফাত রহমান কোকো ছিলেন একজন  ব্যবসায়ী। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের সিনিয়র ভাইস চেয়ারপার্সন তারেক রহমানের ছোট ভাই হলেন কোকো। সবচেয়ে বড় পরিচয়টি, তা হল তিনি সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া বাংলাদেশের সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানরে ছোট ছেলে।

আরাফাত রহমানের কোকোর জন্ম:

কোকো-2

সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের কনিষ্ঠপুত্র আরাফাত রহমান কোকো। কোকোর জন্ম ঢাকায়। কোকোর জন্মগ্রহন করেন ১৯৬৯  সালে । ২০০৭ সালের আগষ্ট মাস পর্যন্ত আরাফাত রহমান কোকো তার মা বেগম খালেদা জিয়া ও পরিবারের সঙ্গেই থাকতেন। আরাফাত রহমান কোকো শিক্ষা জীবন পার করেন ঢাকার বি এফ শাহীন কলেজ থেকে।

কোকোর পারিবারিক জীবন:

কেকো-3

আরাফাত রহমান কোকো পারিবারে তার স্ত্রী শর্মিলী রহমান এবং দুই মেয়ে জাফিয়া রহমান ও জাহিয়া রহমান। আরাফাত রহমান কোকো হৃদরোগে আক্রান্ত ছিলেন। তাই ২০০৭ সালের ১৭ই জুলাই স্ত্রী সৈয়দ শর্মিলী রহমান সিঁথি, এবং দুই মেয়ে জাফিয়া রহমান ও জাহিয়া রহমানকে নিয়ে চিকিৎসার জন্য তিনি থাইল্যান্ড যান। এরপর থাইল্যান্ড থেকে মালয়েশিয়া যান। সেখানে কোকো তার পারিবারের সঙ্গে থাকতেন। প্রায় ৭ বছর যাবত তিনি নির্বাসিত জীবন যাপন করে আসছিলেন।

ক্রীড়াঙ্গনে কোকো:

কেকো-4

কোকো বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য হিসেবে ছিলেন ২০০৩ সাল থেকে ২০০৫ সাল পর্যন্ত । এছাড়া তিনি ওল্ড ডিওএইচএস ক্লাবের চেয়ারম্যান ও ছিলেন ।

কোকোর ইন্তিকাল:

কেকো-5

আরাফাত রহমান কোকো হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মালয়েশিয়ায় ২৪ জানুয়ারি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। ২৪ জানুয়ারি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরের একটি হাসপাতালে নেয়ার পথে দুপুর সাড়ে ১২টায় তিনি মারা যান। মৃত্যুকালে তার বয়স ছিল পঁয়তাল্লিশ বছর। কোকোর মৃত্যুরে সংবাদে বিএনপির নেতা-কর্মীদের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে আসে। বিএনপি চেয়ারপারসনের বেগম খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয়ে শোকাবহ পরিবেশ তৈরি হয়। ছোট ছেলে কোকোর মৃত্যুর সংবাদে বেগম জিয়া স্তব্ধ হয়ে যান। ওই সময় কার্যালয়ে থাকা নেতা-নেত্রীদেরও চোখে পানি নেমে আসে।

কোকোর প্রথম যানাজাঃ

কেকো-6

আরাফাত রহমান কোকোর প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়েছে মালয়েশিয়ার জাতীয় মসজিদে। জানাজা শেষে ইউনিভার্সিটি অব মালায়া হাসপাতালের হিমঘরে রাখা হয়েছে কোকোর লাশ । আজ সোমবার কোকোর মরদেহ দেশে আনার কথা থাকলে ও পরে সিদ্ধান্ত হয় আগামীকাল মঙ্গলবার কোকোর মরদেহ দেশে আনা হচ্ছে। এজন্য মঙ্গলবার সকালের ফ্লাইটে টিকেট কাটা হয়েছে। খালেদা জিয়ার ছোটো ভাই ও নিহত কোকোর মামা শামীম প্রথম জানাজায় অংশ নেন।

Leave a Comment