রাজনীতি

করোনার মধ্যেও অকুতোভয় গণমাধ্যমকর্মীরা: তথ্যমন্ত্রী

তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাছান মাহমুদ বলেছেন, করোনা মহামারির মধ্যেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এগিয়ে চলেছে বাংলাদেশ, গণমাধ্যমকর্মীরাও এ সময় অকুতোভয়ে কাজ করছেন।

বুধবার দুপুরে সচিবালয়ে নিজ দপ্তর থেকে অনলাইনে মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরে এশিয়া-প্যাসিফিক ইনস্টিটিউট ফর ব্রডকাস্টিং ডেভেলপমেন্ট (এআইবিডি) আয়োজিত দুই দিনব্যাপী লিডারস ওয়েব সামিটে মন্ত্রীপর্যায়ের উদ্বোধনী আলোচনায় বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্বকালে তিনি এ কথা বলেন।

তথ্য মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, হাছান মাহমুদ তাঁর বক্তৃতায় বলেন, বাংলাদেশ পৃথিবীর একটি সর্বোচ্চ ঘনবসতির দেশ। এ সত্ত্বেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাঁর দূরদর্শী নেতৃত্বে দেশে যেমন করোনা সংক্রমণকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে সক্ষম হয়েছেন, তেমনি দেশের মানুষের খাদ্য ও কাজেরও কোনো সংকট হতে দেননি। শুধু তা–ই নয়, গত এক বছরে দেশের মানুষের মাথাপিছু আয় ভারতকে ছাড়িয়ে ২ হাজার ২২৭ মার্কিন ডলারে উন্নীত হয়েছে, বিশ্বে ধনাত্মক জিডিপি প্রবৃদ্ধির ২০টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশ তৃতীয় স্থান অর্জন করেছে।

করোনাকালে দেশের গণমাধ্যমের ভূমিকার ভূয়সী প্রশংসা করে তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী বলেন, মানুষকে করোনা বিষয়ে ঠিক তথ্য দেওয়া, স্বাস্থ্যসচেতনতা বার্তা প্রচার এবং গুজব রটনা প্রতিহত করতে দেশের মূলধারার গণমাধ্যম বিশাল ভূমিকা রেখে চলেছে এবং সাংবাদিকেরা অকুতোভয়ে কাজ করে চলেছেন। শত শত গণমাধ্যমকর্মী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন, মৃত্যুবরণও করেছেন অনেকে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণমাধ্যমকর্মীদের জন্য বিশেষ সহায়তা চালু রেখেছেন।

এআইবিডি পরিচালক ফিলোমেনা নানাপ্রাগাসামের সভাপতিত্বে মহামারির তথ্য প্রদানে গণমাধ্যমের ভূমিকা শীর্ষক আলোচনায় মালয়েশিয়ার কমিউনিকেশনস অ্যান্ড মাল্টিমিডিয়ামন্ত্রী দাতো সাইফুদ্দিন আবদুল্লাহ, নাইজেরিয়ার তথ্য ও সংস্কৃতিমন্ত্রী আলহাজি লাই মোহাম্মদ, ফিলিপাইনের তথ্যমন্ত্রী জোসে রুপার্টো মার্টিন আন্দানার এবং কম্বোডিয়ার তথ্য উপমন্ত্রী সক প্রাসিথ বৈঠকে অংশ নেন। খবর প্রথম আলো